চারনোজেম মৃত্তিকা অবস্থান ও উৎপত্তি – চারনোজেম মৃত্তিকা বৈশিষ্ট্য কি কি?

চারনোজেম মৃত্তিকা অবস্থান ও উৎপত্তি – চারনোজেম মৃত্তিকা বৈশিষ্ট্য কি কি?: চেরনোজেম মাটি [Chernozem Soil] বলতে সাধারণত জৈব পদার্থ সমৃদ্ধ কালো বর্ণের মাটিকে বুঝায়। উচ্চারণগত প্রভেদের কারণে এ মাটিকে বিভিন্ন জন বিভিন্ন ভাবে উচ্চারণ করে থাকে। যেমন – চেরনোজেম মাটি, সারনোজেম মৃত্তিকা, এবং চারনোজেম মাটি। যাহোক না কেন, চেরনোজেম শব্দটি মূলতঃ রুশ ভাষার একটি শব্দ। চেরনোজেম শব্দটির অর্থ হল কালো (black)। অর্থাৎ চেরনোজেম মাটি হল কালো বর্ণের মাটি।

চারনোজেম একটি রাশিয়ান শব্দ যার অর্থ কালো অর্থাৎ চারনোজেম মৃত্তিকা হল কালো মৃত্তিকা । রাশিয়ান মৃত্তিকা বিজ্ঞানীরা প্রথম এই মৃত্তিকা আবিষ্কার করেন। চারনোজেম মৃত্তিকা সাধারণত তৃণভূমি অঞ্চল সৃষ্ট একপ্রকার আঞ্চলিক মৃত্তিকা। সাধারণত ৭৫ থেকে ১২৫ সেমি বৃষ্টিপাতযুক্ত উষ্ণ ও শুষ্ক নাতিশীতোষ্ণ তৃণভূমি অঞ্চলে চারনোজেম মৃত্তিকার বিকাশ ঘটে।

অবস্থান – ইউক্রেনের স্তেপ, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেইরি, মধ্যচিনের সমভূমি, দক্ষিন আমেরিকার পম্পাস তৃনভূমিতে চারনোজেম মৃত্তিকা দেখা যায়।

উৎপত্তি – নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ু অঞ্চলে যেখানে গড় উষ্ণতা তুলনামূলক ভাবে বেশি সেখানে বৃষ্টিপাত অপেক্ষা বাষ্পীভবন বেশি হওয়ায় উদ্ভিদ জন্মানোর জন্য কার্যকরী বৃষ্টিপাতের পরিমান কম তাই তৃনভূমির সৃষ্টি হয়। এই অঞ্চলে গ্রীষ্মকাল শুষ্ক ও বর্ষাকাল উপ আর্দ্র প্রকৃতির প্রকৃতির হওয়ায় বর্ষাকালে প্রচুর ঘাস জন্মায়।

এই সময় জীবাণু ঘটিত কাজের জন্য ঘাস পচে যায় এবং প্রচুর হিউমাস সৃষ্টি হয়। ধৌত প্রক্রিয়ায় ক্ষার ও ক্ষারকীয় মাটির দ্রবীভূত লবন প্রচুর পরিমানে মাটির নিচে B স্তরে চলে যায়। কখনো কখনো বৃষ্টিপাত বেশি হলে মাটির সব লবন B স্তরে চলে যায়। বর্ষার পরে শুষ্ক ঋতুতে CaCO3 ও জিপসাম কৈশিক প্রক্রিয়ায় পুনরায় মাটির উপরের স্তরের কাছাকাছি উঠে আসে। এইভাবে স্বল্প ক্ষারকীয় অবস্থায় মাটি গঠন প্রক্রিয়া শুরু হয়। মাটির ওপরের স্তরে প্রচুর হিউমাস ও হিউমাস জাতীয় পর্দাথের সঞ্চয় ঘটে। ফলে মাটিতে জৈব পদার্থের পরিমান বেড়ে যায়, এই জন্য এই মাটি উর্বর হয় এবং জৈব পদার্থ বেশি থাকে বলে মৃত্তিকার বর্ন কালো হয়।

চারনোজেম মৃত্তিকার বৈশিষ্ট্য

১. মন্টমরিলোনাইট কর্দম কনার অবস্থানের জন্য এই মাটির জলধারন ক্ষমতা অনেক বেশি হয়।

২. চারনোজেম মৃত্তিকায় প্রচুর জৈব পদার্থ ও খনিজ পদার্থ থাকে বলে, চারনোজেম মৃত্তিকার উর্বর সবথেকে বেশি হয়। 

৩. এই মাটির স্বল্প পরিবর্তিত রূপ হল প্রেইরি মৃত্তিকা।

৪. চারনোজেম মৃত্তিকা কৃষি কাজের পক্ষে আদর্শ। এই মাটির প্রধান ফসল হল গম, এছাড়া ভুট্টা ও অন্যান্য পশু খাদ্য উৎপাদন করা হয়।

Leave a Comment