গচ্ছিত সম্পদ ও অবাধ সম্পদের পার্থক্য | পুনর্ভব ও অপুনর্ভব সম্পদের পার্থক্য কি?

গচ্ছিত সম্পদ ও অবাধ সম্পদের পার্থক্য | পুনর্ভব ও অপুনর্ভব সম্পদের পার্থক্য কি?

গচ্ছিত সম্পদ ও অবাধ সম্পদের পার্থক্যগুলি হল নিম্নরূপ:

১)সংজ্ঞা: যেসব সম্পদের পরিমাণ নির্দিষ্ট বা সীমিত এবং ক্রমাগত ব্যবহারের ফলে নিঃশেষিত হয়ে যায়, সেইসব সম্পদকে গচ্ছিত সম্পদ বলে। অপরদিকে, যেসব সম্পদ ক্রমাগত ব্যবহারের ফলে নিঃশেষিত হয় না, সেইসব সম্পদকে অবাধ সম্পদ বলে।

২)অন্য নাম: গচ্ছিত সম্পদ সঞ্চিত সম্পদ, অপুনর্ভব সম্পদ ও ক্ষয়িষ্ণু সম্পদ নামেও পরিচিত। অপরদিকে, অবাধ সম্পদ প্রবাহমান সম্পদ, অক্ষয়িষ্ণু সম্পদ ও পুনর্ভব সম্পদ নামে পরিচিত।

৩)পরিমাণ: গচ্ছিত সম্পদের পরিমাণ চাহিদামত বৃদ্ধি করা যায় না। কারণ এর পরিমাণ নির্দিষ্ট। অপরদিকে, অবাধ সম্পদের পরিমাণ চাহিদামত বৃদ্ধি করা যায়। কারণ এর পরিমাণ অফুরন্ত।

৪)নবীকরণ: গচ্ছিত সম্পদ পুনরায় নবীকরণ করা যায় না। অপরদিকে, অবাধ সম্পদ পুনরায় নবীকরণ করা যায়।

৫)পরিবেশ দূষণ: গচ্ছিত সম্পদ পরিবেশ দূষণে বহু ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ ভূমিকা পালন করে। অপরদিকে, অবাধ সম্পদ দ্বারা পরিবেশ দূষণের কোনো সম্ভাবনা থাকেনা।

৬) আহরণ ব্যয়: গচ্ছিত সম্পদ আহরণ করা অত্যন্ত ব্যয়বহুল। অপরদিকে, অবাধ সম্পদ আহরণ করা অপেক্ষাকৃত কম ব্যয়বহুল।

৭) উদাহরণ: কয়লা, খনিজ তেল ইত্যাদি হল গচ্ছিত সম্পদের উদাহরণ। অপরদিকে, বনভূমি, সমুদ্রের মাছ, সূর্যালোক ইত্যাদি হল অবাধ সম্পদের উদাহরণ।

Leave a Comment