প্রাচীন ভারতের ইতিহাস MCQ প্রশ্ন উত্তর

প্রাচীন ভারতের ইতিহাস MCQ প্রশ্ন উত্তর: প্রতিবছর বিভিন্ন সরকারি চাকরির পরীক্ষায় History Questions Answers in Bengali PDF থেকে অনেক প্রশ্ন আসে। তাই আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি প্রাচীন ভারতের ইতিহাস MCQ প্রশ্ন উত্তর PDF

নিচে ইতিহাস প্রশ্ন উত্তর PDF টি যত্নসহকারে পড়ুন ও জ্ঞানভাণ্ডার বৃদ্ধি করুন। History Questions Answers in Bengali PDF টি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে এই পোস্টটির নীচে যান এবং ডাউনলোড করুন।

প্রাচীন ভারতের ইতিহাস MCQ প্রশ্ন উত্তর

১. ভারতীয় উপমহাদেশে প্রাচীন স্থায়ী কৃষিকাজের প্রমাণ কোথায় মিলে? 

(a) মেহেরগড় ✓✓

(b) কালিবঙ্গান 

(c) আমরি 

(d) ধোলাভিরা

Note: ১৯৭৪ খ্রিস্টাব্দে ফরাসী প্রত্নতাত্ত্বিক জাঁ ফ্রাঁসোয়া জারিজ ও রিচার্ড মিডো মেহেরগড় সভ্যতা আবিষ্কার করেন। এটি একটি গ্রামকেন্দ্রিক সভ্যতা। নব্যপ্রস্তর যুগের ভারতের প্রাচীনতম কেন্দ্র হল মেহেরগড় সভ্যতা।

২. ‘রাজতরঙ্গিনী’-র রচয়িতা কে? 

(a) কলহন ✓✓

(b) অলবিরুনি 

(c) হেরোডোটাস 

(d) মেগাস্থিনিস

Note: ঐতিহাসিক কলহন ১১৪৮-৪৯ সালে ‘রাজতরঙ্গিনী’ রচনা করেন। তাঁর পিতা চম্পক রাজা হর্ষের মন্ত্রী ছিলেন। ‘ইন্ডিকা’ গ্রন্থের রচয়িতা মেগাস্থিনিস। তহকিক-ই-হিন্দ’ গ্রন্থের রচয়িতা অলবিরুনি।

৩. ‘কালিবঙ্গান’ কোথায় অবস্থিত? 

(a) রাজস্থান ✓✓

(b) গুজরাট 

(c) পাঞ্জাব 

(d) হিমাচলপ্রদেশ

Note: কালিবঙ্গান অবস্থিত রাজস্থানের গঙ্গানগরের হনুমানগড়ে। কালিবঙ্গান আবিষ্কার করেন অমলানন্দ ঘোষ ১৯৫৩ সালে। কালীবঙ্গান ছিল প্রাক্ হরপ্পা সভ্যতা। কালিবঙ্গান কথার অর্থ কৃষ্ণবালা বা কালো বালা। এখানে উটের হাড়ের নিদর্শন পাওয়া গেছে।

৪. সিন্ধু সভ্যতায় নিম্নের কোন ধাতুটির ব্যবহার ছিল না? 

(a) লোহা ✓✓

(b) তামা 

(c) ব্রোঞ্জ 

(d) রুপা

৫. সর্বপ্রথম কে অশোকের লিপি পাঠোদ্ধার করেন? 

(a) জেমস প্রিন্সপ ( ১৮৩৭ সালে) ✓✓

(b) চার্লস মেটকাফে (১৮২৫ সালে) 

(c) হ্যারি স্মিথ (১৮১০ সালে) 

(d) জন টাওয়ার (১৭৮৭ সালে)

৬. আর্যদের প্রাচীনতম গ্রন্থ কোনটি? 

(a) ঋকবেদ ✓✓

(b) সামবেদ 

(c) যজুর্বেদ 

(d) অথর্ববেদ

Note: ঋকবেদ হল পৃথিবীর প্রাচীনতম সাহিত্য ও আর্যদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ। এর রচনাকাল আনুমানিক ১৫০০ খ্রিঃপূঃ – ১০০০ খ্রিঃপূঃ। ঋক্ শব্দের অর্থ হল পদ্মনিবন্ধ মন্ত্র। ঋকবেদের পুরোহিতের নাম – হোতা বা হোত্রী। সামবেদের পুরোহিতের নাম – উদগাতা। যজুর্বেদের পুরোহিতের নাম – অর্ধায়ু। অথর্ববেদের পুরোহিতের নাম ব্রহ্মা।

৭. কোন রাজবংশের শাসক জৈন ধর্মের দীক্ষা নিয়েছিলেন? 

(a) চালুক্য ✓✓

(b) পল্লব 

(c) রাষ্ট্রকূট 

(d) চৌহান

Note: চালুক্য রাজ দ্বিতীয় বিক্রমাদিত্য জৈন ধর্মের পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। শুধু তাই নয় তিনি কতকগুলি জৈন মন্দির সংস্কার করেন এবং জৈন সন্ন্যাসী জয় পন্ডিতকে ভূমিদান করেন।

৮. ‘বুদ্ধচরিত’ গ্রন্থের রচয়িতা কে? 

(a) অশ্বঘোষ ✓✓

(b) চরক 

(c) বানভট্ট 

(d) গৌতম বুদ্ধ

Note: ‘বুদ্ধচরিত’ হল সংস্কৃত ভাষায় রচিত গ্রন্থ। অশ্বঘোষ ছিলেন কনিষ্কের সভাকবি।

৯. হর্ষঙ্ক বংশের শাসক অজাতশত্রু কার পুত্র ছিলেন? (a) বিম্বিসার ✓✓

(b) অনুরুদ্ধ 

(c) নাগদশক 

(d) উদয়িন

Note: মগধের শাসক বিম্বিসারের দ্বিতীয় পত্নী লিচ্ছবি রাজকন্যা চেন্ননার গর্ভজাত পুত্র ছিলেন অজাতশত্রু। তাঁর উপাধি ছিল ‘কুনিক’। বুদ্ধদেবের তিরোধানের পর অজাতশত্রুর উদ্যোগে রাজগৃহে প্রথম বৌদ্ধ সংগীতি অনুষ্ঠিত হয়। অজ্ঞাতশত্রু দীর্ঘ ১৬ বছর যুদ্ধ করার পর বৃজি মহাজনপদকে বসে এনেছিলেন।

১০. আলেকজান্ডারের ভারত আক্রমণের সময় মগধে কোন বংশ রাজত্ব করছিল? 

(a) নন্দ বংশ ✓✓

(b) পাল বংশ 

(c) মৌর্য বংশ 

(d) গুপ্ত বংশ

Note: আলেকজান্ডারের ভারত আক্রমণের সময় নন্দ বংশের রাজা ছিলেন ধননন্দ। নন্দ বংশের প্রতিষ্ঠাতা মহাপদ্মনন্দকে পুরাণের ‘দ্বিতীয় পরশুরাম’ বলা হয়েছে। কারণ পরশুরামের মতো তিনি ক্ষত্রিয় নিধন করেছিলেন।

১১. প্রাচীন ভারতে কোন সম্রাট মৌর্য সাম্রাজ্যের উত্থান করেন? 

(a) চন্দ্রগুপ্ত ✓✓

(b) বিন্দুসার 

(c) দশরথ 

(d) অশোক

Note: মৌর্য বংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য (৩২৪-৩০০ খ্রিঃপূঃ )। গ্রিক দূত মেগাস্থিনিস তাঁর রাজসভায় আসেন। মেগাস্থিনিস সেলুকাসের দূত ছিলেন। মেগাস্থিনিসের বিখ্যাত গ্রন্থ হল ‘ইন্ডিকা’। এই গ্রন্থ থেকে চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের শাসনব্যবস্থা ও সমসাময়িক ভারতবর্ষ সম্পর্কে বহু তথ্য আমরা পাই।

১২. কলিঙ্গ যুদ্ধ কবে সংঘটিত হয়েছিল? 

(a) ২৬১ খ্রিঃ পূঃ ✓✓

(b) ৪৬১ খ্রিঃ পূঃ 

(c) ১৬১ খ্রিঃ পূঃ 

(d) ৩৬১ খ্রিঃ পূঃ

Note: বর্তমান উড়িষ্যা ও অন্ধ্রের কিছু অংশ নিয়ে কলিঙ্গ রাজ্য গঠিত ছিল। অশোকের রাজ্যাভিষেকের নবম বর্ষ (মতান্তরে অষ্টম) ২৬০ খ্রিঃ পূঃ (মতান্তরে ২৬১ খ্রিঃ পূঃ) কলিঙ্গযুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল।

১৩. গান্ধার শিল্প কোন কোন শিল্পরীতির সংমিশ্রণ ? 

(a) ইন্দো-গ্রীক ✓✓

(b) ইন্দো-রোমান 

(c) ইন্দো-চীন 

(d) ইন্দো-ইসলামিক

Note: গান্ধার শিল্পের বিষয়বস্তু ছিল বুদ্ধ ও বোধিসত্ত্ব। ভারতে গান্ধার শিল্প বিকাশের পশ্চাতে ছিল ভারত রোম বাণিজ্য।

১৪. কোন কুষাণ সম্রাট বৌদ্ধধর্মের পৃষ্ঠপোষক ছিলেন?

(a) কনিষ্ক ✓✓

(b) অশোক 

(c) কৌটিল্য 

(d) বিক্রমাদিত্য

Note: কনিষ্ক ৭৮ খ্রিস্টাব্দে সিংহাসনে বসেন এবং ‘শকাব্দ’ নামে একটি সম্বৎ বা অব্দ প্রবর্তন করেন। তাঁর আহ্বানে কাশ্মীরে (মতান্তরে জলন্ধরে) চতুর্থ বৌদ্ধ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

১৫. এলাহাবাদ প্রশস্তির রচয়িতা কে? 

(a) হরিসেন ✓✓

(b) সমুদ্রগুপ্ত 

(c) প্রথম চন্দ্রগুপ্ত 

(d) বাণভট্ট

Note: সম্রাট অশোকের এলাহাবাদ স্তম্ভের উপর খোদাই করা সংস্কৃত ভাষায় রচিত ‘এলাহাবাদ প্রশস্তি’ থেকে সমুদ্রগুপ্তের সাময়িক প্রতিভা ও রাজত্বকালের পূর্ণাঙ্গ বিবরণ পাওয়া যায়।

১৬. নিচের কোন গুপ্ত শাসক বিক্রমাদিত্য হিসাবে পরিচিত? 

(a) দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্ত ✓✓

(b) প্রথম চন্দ্রগুপ্ত 

(c) সমুদ্রগুপ্ত 

(d) স্কন্ধগুপ্ত

Note: দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্তের সময়কাল ৩৮০ খ্রিস্টাব্দ থেকে ৪১৪ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত। দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্তের উপাধি — শকারি, বিক্রমাদিত্য, পরম ভাগবত।

১৭. ‘রাষ্ট্রকূট’ বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে ছিলেন? 

(a) দন্তিদুর্গ ✓✓

(b) প্রথম কৃষ্ণ 

(c) তৃতীয় গোবিন্দ 

(d) তৃতীয় কৃষ্ণ

১৮. শশাঙ্কের রাজধানী কোথায় ছিল? 

(a) কর্ণসুবর্ণ ✓✓

(b) তাম্রলিপ্ত 

(c) পাটনা 

(d) ফতেহাবাদ

Note: বর্তমান মুর্শিদাবাদ জেলার কর্ণসুবর্ণ বা রাঙ্গামাটিতে রাজধানী করে শশাঙ্ক স্বাধীন গৌড় রাজ্যের প্রতিষ্ঠা করেন। শশাঙ্ক পরবর্তী গুপ্তরাজ মহাসেনগুপ্তের অধীনে একজন সামন্ত ছিলেন। মৌখরিরাজ গ্রহবর্মন ও থানেশ্বরের রাজা রাজ্যবর্ধন শশাঙ্কের হাতেই নিহত হন। শশাঙ্ক শিবের উপাসক ছিলেন।

১৯. কোন রাজবংশের আমলে মুহাবলীপুরমে পঞ্চরথ মন্দির নির্মিত হয়েছিল? 

(a) পল্লব ✓✓

(b) চোল 

(c) সাতবাহন 

(d) রাষ্ট্রকূট

Note: পল্লবরাজ প্রথম নরসিংহ বর্মনের আমলে মহাবলীপুরমে রথমন্দিরগুলির নির্মাণ শুরু হয় এবং দ্বিতীয় নরসিংহ বর্মনের আমলে সম্পূর্ণ হয়। প্রথম নরসিংহবর্মন ‘মহামন্ত্র’ উপাধি ধারণ করেন। পল্লব বংশের সর্বশ্রেষ্ঠ রাজা ছিলেন প্রথম নরসিংহ বর্মন। পল্লব বংশের শেষ রাজা ছিলেন অপরাজিত।

২০. সাতবাহন বংশের প্রতিষ্ঠাতা কে? 

(a) সিমুক ✓✓

(b) গৌতমীপুত্র সাতকর্ণী 

(c) সাতকর্ণী 

(d) কৃষ্ণ

২১. সন্ধ্যাকর নন্দী কোন রাজবংশের সভাকবি ছিলেন? 

(a) পাল রাজবংশ ✓✓

(b) সেন রাজবংশ 

(c) মৌর্য রাজবংশ 

(d) হুসেনশাহী রাজবংশ

Note: পালরাজ রামপালের সভাকবি ছিলেন সন্ধ্যাকর নন্দী। তাঁর লেখা ‘রামচরিত’ গ্রন্থ খুবই উল্লেখযোগ্য। ‘রামচরিত” গ্রন্থে সন্ধ্যাকর নন্দী কৈবর্ত বিদ্রোহকে ‘অনিকম ধর্মবিপ্লব’ বলে বর্ণনা করেছেন। ‘অনিকম’ কথার অর্থ অপবিত্র।

২২. বিক্রমশীলা মহাবিহার কে প্রতিষ্ঠা করেন? 

(a) ধর্মপাল ✓✓

(b) প্রথম দেবপাল 

(c) দ্বিতীয় দেবপাল 

(d) গোপাল

Note: ধর্মপালের উপাধি ছিল বিক্রমশীল। তাই তাঁর প্রতিষ্ঠিত মহাবিহারের নাম হয় ‘বিক্রমশীলা মহাবিহার’। গুজরাটি কবি সোচচল ধর্মপালকে ‘উত্তরাপথস্বামীন’ বলে অভিহিত করেছেন।

২৩. ‘মুদ্রারাক্ষস’ নাটকটির রচয়িতা কে? 

(a) বিশাখদত্ত ✓✓

(b) শূদ্রক 

(c) কলহন 

(d) কালিদাস

Note: সপ্তম শতকে বিশাখদত্ত রচনা করেন ‘মুদ্রারাক্ষস’। মৌর্য সম্রাট চন্দ্রগুপ্তের জীবনী ও তৎকালীন ভারতীয় রাজনীতির জটিলতাকে উপজীব্য করে নাটকখানি রচিত। প্রাচীন ভারতীয় রাজনীতিবিদদের অনুসৃত কূটনীতি ও সাম-দান-ভেদ দণ্ডনীতির উপর প্রভূত আলোকপাত করেছে এই নাটকখানি। বিশাখদত্তের অপর বিখ্যাত গ্রন্থ হল ‘দেবী চন্দ্ৰগুপ্তম’।

২৪. কোন রাজ্যে অজান্তা গুহাটি অবস্থিত? 

(a) মহারাষ্ট্র ✓✓

(b) কেরালা 

(c) উত্তরপ্রদেশ 

(d) মধ্যপ্রদেশ

২৫. সিন্ধু সভ্যতার অন্যতম নগর লোথাল কোথায় অবস্থিত? 

(a) গুজরাট ✓✓

(b) রাজস্থান 

(c) পাঞ্জাব 

(d) হরিয়ানা

Note: গুজরটি ভাষায় ‘লোথাল’ শব্দের অর্থ হল ‘মৃতের স্থান’।

2 thoughts on “প্রাচীন ভারতের ইতিহাস MCQ প্রশ্ন উত্তর”

Leave a Comment