ইন্দিরা গান্ধী জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali

ইন্দিরা গান্ধী জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali: Gksolve.in আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছে Indira Gandhi Biography in Bengali. আপনারা যারা ইন্দিরা গান্ধী সম্পর্কে জানতে আগ্রহী ইন্দিরা গান্ধী র জীবনী টি পড়ুন ও জ্ঞানভাণ্ডার বৃদ্ধি করুন।

ইন্দিরা গান্ধী কে ছিলেন? Who is Indira Gandhi?

ইন্দিরা প্রিয়দর্শিনী গান্ধী (১৯ নভেম্বর, ১৯১৭ – ৩১ অক্টোবর, ১৯৮৪) ছিলেন একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রী এবং ভারতের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী। ইন্দিরা গান্ধীই হলেন একমাত্র মহিলা যিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। পারিবারিক পরিচয়ে ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর কন্যা ইন্দিরা ১৯৬৬ সালের জানুয়ারি থেকে ১৯৭৭ সালের মার্চ এবং পুনরায় ১৯৮০ সালের জানুয়ারি থেকে ১৯৮৪ সালের অক্টোবরে নিহত হওয়ার দিন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী পদে আসীন ছিলেন। তিনিই ভারতে দ্বিতীয় দীর্ঘতম মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন (জওহরলাল নেহেরুর পরে)।

ইন্দিরা গান্ধী জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali

নামইন্দিরা গান্ধী
জন্ম19 নভেম্বর 1917
পিতাজওহরলাল নেহেরু
মাতাকমলা নেহেরু
জন্মস্থানএলাহাবাদ, আগ্রা এবং অউধের সংযুক্ত প্রদেশ, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমান প্রয়াগরাজ, ভারত)
জাতীয়তাভারতীয়
পেশারাজনীতিবিদ
মৃত্যু31 অক্টোবর 1984 (বয়স 66)

ইন্দিরা গান্ধী র জন্ম: Indira Gandhi’s Birthday

ইন্দিরা গান্ধী 19 নভেম্বর 1917 জন্মগ্রহণ করেন।

ইন্দিরা গান্ধী র পিতামাতা ও জন্মস্থান: Indira Gandhi’s Parents And Birth Place

ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। ১৯১৭ খ্রিঃ ১৯ নভেম্বর উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদে জন্মগ্রহণ করেন। ইন্দিরা ভারতবর্ষের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু এবং তার স্ত্রী কমলা নেহরুর একমাত্র কন্যা।

ইন্দিরা গান্ধী র শিক্ষাজীবন: Indira Gandhi’s Educational Life

তিনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতন, জেনেভা এবং অক্সফোর্ডে শিক্ষালাভ করেন। জাতীয় চেতনায় উদ্বুদ্ধ পারিবারিক পরিবেশে লালিত হয়ে এবং পিতা জওহরলালের উৎসাহে বাল্যবয়স থেকে ইন্দিরার মনে স্বদেশ প্রীতির বীজ রোপিত হয়।

ইন্দিরা গান্ধী র প্রথম জীবন: Indira Gandhi’s Early Life

১২ বছর বয়সে ১৯৩০ খ্রিঃ তিনি ‘চরকা সংঘ’ গঠন করেন। পরে প্রায় ৬০০০ ছেলেমেয়ে নিয়ে জাতীয় কংগ্রেসের কিশোর বাহিনী ‘বানর সেনা’ সৃষ্টি করেন। ১৯৩৮ খ্রিঃ ইন্দিরা কংগ্রেসের সদস্য হন। ফিরোজ গান্ধীর সঙ্গে বিবাহ হয় ১৯৪২ খ্রিঃ। বিবাহের কিছুদিন পরে ‘অন্তর্ঘাতমূলক’ কাজ করার অভিযোগে তিনি ১৩ মাসের জন্য কারাদণ্ডে দন্ডিত হন।

ইন্দিরা গান্ধী র রাজনৈতিক জীবন: Indira Gandhi’s Political Life

১৯৫৫ খ্রিঃ ইন্দিরা কংগ্রেসের কার্যকরী সমিতির সদস্যা এবং ১৯৫৯-৬০ খ্রিঃ জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি পদে বৃত হন। ১৯৬৪ খ্রিঃ তিনি রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হন। জওহরলালের মৃত্যুর পরে লালবাহাদুর শাস্ত্রী প্রধান মন্ত্রী হন। ১৯৬৪-৬৬ খ্রিঃ শাস্ত্রীজির মন্ত্রিসভায় তথ্য ও বেতার দপ্তরের মন্ত্রী হন ইন্দিরা। লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যুর পরে কংগ্রেসের কার্যকরী সমিতির অধিকাংশ সদস্যের ইচ্ছায় তিনি প্রধানমন্ত্রী পদে নির্বাচিত হন।

১৯৬৯ খ্রিঃ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কংগ্রেস কার্যকরী সমিতির সঙ্গে তাঁর মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। তিনি দলীয় প্রার্থী নীলম সঞ্জীব রেড্ডিকে সমর্থন না করে দলীয় সদস্যদের বিবেক – অনুযায়ী নির্দল প্রার্থী ভি.ভি. গিরিকে ভোট দিতে অনুরোধ করেন। প্রধানত তারই আগ্রহ এবং চেষ্টায় ভি . ভি . গিরি জয়যুক্ত হন।

এই ঘটনা এবং মোরারজী দেশাইয়ের অর্থ দপ্তর স্বয়ং গ্রহণ এবং দেশাইয়ের মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগকে কেন্দ্র করে জাতীয় কংগ্রেস সংগঠন কংগ্রেস বা আদি কংগ্রেস এবং নব কংগ্রেস — এই দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে। শ্রীমতী গান্ধী নব কংগ্রেসের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন এবং ১৯৭১ খ্রিঃ লোকসভা নির্বাচনে দলকে জয়ী করতে সমর্থ হন।

ইন্দিরা গান্ধী র মৃত্যু: Indira Gandhi’s Death

31 অক্টোবর 1984 (বয়স 66) ইন্দিরা গান্ধীর জীবনাবসান হয়।

Leave a Comment