দক্ষিণ ভারতের অধিকাংশ নদী পূর্ব বাহিনী হলেও নর্মদা ও তাপ্তি নদী পশ্চিম বাহিনী কেন?

দক্ষিণ ভারতের অধিকাংশ নদী পূর্ব বাহিনী হলেও নর্মদা ও তাপ্তি নদী পশ্চিম বাহিনী কেন?: সাতপুরা ও বিন্ধ্য পর্বতের দক্ষিণাংশের নদীগোষ্ঠীকে একত্রে দক্ষিণ ভারতের নদী বলা হয়। প্রবাহের দিক অনুসারে দক্ষিণ ভারতের মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা, কাবেরী প্রভৃতি অধিকাংশ বড় নদী পূর্ব বাহিনী হলেও নর্মদা ও তাপ্তিসহ কয়েকটি ছোট নদী পশ্চিম বাহিনী। এর কারণগুলি হল-

১)ভূমির ঢাল: নদী প্রধানত ভূমির ঢাল অনুযায়ী প্রবাহিত হয়।দাক্ষিণাত্য মালভূমির সাধারণ ঢাল পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে হওয়ায় ওই মালভূমির ওপর দিয়ে প্রবাহিত নদীগুলি পূর্ব বাহিনী। কিন্তু পূর্ব থেকে পশ্চিমে বিস্তৃত সাতপুরা ও বিন্ধ্য পর্বতের মধ্যবর্তী গ্রস্ত উপত্যকার ঢাল পূর্ব থেকে পশ্চিম দিকে হওয়ায় ওই উপত্যকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত নর্মদা ও তাপ্তি নদী পশ্চিম বাহিনী।

২)পাত ও চ্যুতি: ভারতের পশ্চিম উপকূল চ্যুতিযুক্ত হওয়ায় আরব সাগরীয় পাতের চাপ প্রতিরোধ করতে গিয়ে পশ্চিম উপকূল বেঁকে গিয়েছে এবং পূর্বদিক ঢাল যুক্ত হয়েছে। এই কারণে দক্ষিণ ভারতের বেশিরভাগ নদী পূর্ব দিকে প্রবাহিত হয়েছে। অপরদিকে পশ্চিম দিকের ভূভাগ বসে গিয়ে খাম্বাত উপসাগরের সৃষ্টি হয়েছে বলে সাতপুরা ও বিন্ধ্য পর্বতের মধ্যবর্তী গ্রস্ত উপত্যকার মধ্য দিয়ে নর্মদা ও তাপ্তি নদী পশ্চিম দিকে প্রবাহিত হয়ে খাম্বাত উপসাগরে পড়েছে।

Leave a Comment