President Draupadi Murmu Biography In Bengali – দ্রৌপদী মুর্মু জীবনী – (জাতি, সম্পত্তি, বিবাহ)

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর জীবনী – (দ্রৌপদী মুর্মুর জন্ম, পরিবার, শিক্ষা, জাতি, সম্পত্তি, রাজনৈতিক দল ইত্যাদি) President Draupadi Murmu Biography, Qualification, Caste, Age, Husband, Income, Daughter, Rss, President Elecation, Politician Party, Religion Etc In Bengali.

সম্প্রতি ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিনহাকে হারিয়ে ভারতের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন দ্রৌপদী মুর্মু। তিনি ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী হিসাবে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। আজ এই আর্টিকেলে আমরা ভারতের ১৫ তম রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু জীবনী সহ তার সম্পর্কিত বেশ কিছু তথ্য নিয়ে এসেছি।

Draupadi Murmu Biography In Bengali – (দ্রৌপদী মুর্মু জীবনী)

নামদ্রৌপদী মুর্মু
বয়স৬৪ বছর
পদরাষ্ট্রপতি
পেশারাজনীতি
পিতার নামবিরঞ্চি নারায়ণ টুডু
স্বামীর নামশ্যাম চরণ মুর্মু
রাজনৈতিক দলভারতীয় জনতা পার্টি (BJP)
জন্ম তারিখ২০-ই জুন ১৯৫৮
জন্ম স্থানওড়িশার ময়ুরভঞ্জ জেলার বাইদাপোসি গ্রাম
শিক্ষাকলা স্নাতক (Arts graduate)
কলেজরমা দেবী মহিলা কলেজ
জাতীয়তাভারতীয়
ধর্মহিন্দু
জাতিST
সম্পত্তি৯.৫ লক্ষ – ১০ লক্ষ (Estimated)

Google News এ আমাদের ফলো করুন

gksolve-google-news

দ্রৌপদী মুর্মুর শৈশব জীবন

দ্রৌপদী মুর্মু ২০-ই জুন ১৯৫৮ সালে ভারতের ওড়িশার ময়ুরভঞ্জ জেলার বাইদাপোসি গ্রামে বিরঞ্চি নারায়ণ টুডুর বাড়িতে জন্মগ্রহণ করে ছিলেন। পিতা বিরঞ্চি নারায়ণ টুডু গ্রামের প্রধান হওয়ার কারণে রাজনীতির সঙ্গে দ্রৌপদী মুর্মুর পরিচিতি শৈশব বেলা থেকেই হয়ে যায়। তিনি তার প্রাথমিক শিক্ষা গ্রামেই গ্রহণ করেন।

দ্রৌপদী মুর্মুর শিক্ষা

প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে তিনি কলা বিভাগ নিয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করার জন্য ভুবনেশ্বর শহরে চলে যান। তিনি ভুবনেশ্বর শহরে রমা দেবী মহিলা কলেজে ভর্তি হন এবং সেখান থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।

স্নাতক শেষ করার পর, তিনি ওড়িশার সরকারি বিদ্যুৎ বিভাগে জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে চাকরি পান। তিনি সেখানে ১৯৭৯ থেকে ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত কাজ করেন। এরপর ১৯৯৪ সালে রায়রংপুরের অরবিন্দ ইন্টিগ্রাল এডুকেশন সেন্টারে শিক্ষক হিসেবে তিন বছরের জন্য যোগ দেন।

দ্রৌপদী মুর্মুর বিবাহ

দ্রৌপদী মুর্মু শ্যাম চরণ মুর্মুকে বিয়ে করেছিলেন। দ্রৌপদী মুর্মু ও শ্যাম চরণ মুর্মু দুই ছেলে ও এক মেয়ের মা বাবা ছিলিনে। তবে দূর্ভাগ্যবসত তাদের ২ টি ছেলে মারা যান।

দ্রৌপদী মুর্মুর রাজনৈতিক জীবন

দ্রৌপদী মুর্মুর রাজনৈতিক যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৭ রায়রংপুর নগর পঞ্চায়েতের কাউন্সিলর হিসাবে। এর পর তিনি ২০০০ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত ওড়িশার বাণিজ্য ও পরিবহনের জন্য স্বতন্ত্র দায়িত্ব সহ প্রতিমন্ত্রী ছিলেন এবং ২০০২ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ উন্নয়নের মন্ত্রী ছিলেন। তিনি ২০১৫ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল হিসাবেও কাজ করেছেন। এছাড়াও তিনি ভারতীয় জনতা পার্টি তফসিলি উপজাতি মোর্চার জাতীয় সহ-সভাপতি পদের দায়িত্ব নিয়ে ছিলেন।

রাষ্ট্রপতি হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মু

২০২২ সালের ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে দ্রৌপদী মুর্মু বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিনহাকে হারিয়ে ভারতের প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। দ্রৌপদী মুর্মু এনডিএ-র রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসাবে প্রেসিডেন্টাল ইলেক্শনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তিনি বিপুল ভোটের সঙ্গে জয়ী হয়ে ভারতের ১৫ তম রাষ্ট্রপতি হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

দ্রৌপদী মুর্মুর পুরস্কার (Awards)

২০০৭ সালে ওড়িশা বিধানসভা দ্বারা দ্রৌপদী মুর্মুকে সেরা বিধায়ক হওয়ার জন্য নীলকণ্ঠ পুরস্কার দেওয়া হয়।

Frequently Asked Questions (FAQ):

Q. দ্রৌপদী মুর্মু কে?

Q. দ্রৌপদী মুর্মু হলেন ভারতের রাষ্ট্রপতি।

Q. দ্রৌপদী মুর্মুর স্বামীর নাম কি?

দ্রৌপদী মুর্মুর স্বামী হলেন শ্যাম চরণ মুর্মু।

Q. দ্রৌপদী মুর্মু কোন পুরস্কার পেয়েছেন?

দ্রৌপদী মুর্মু নীলকণ্ঠ পুরস্কার পেয়েছেন।

Q. দ্রৌপদী মুর্মুর মেয়ের নাম কি?

দ্রৌপদী মুর্মুর মেয়ের হলো ইতিশ্রী মুর্মু।

Q. দ্রৌপদী মুর্মু ভারতের কত তম রাষ্ট্রপতি?

দ্রৌপদী মুর্মু হলেন ভারতের ১৫ তম রাষ্ট্রপতি।

Q. কোন রাজনৈতিক দলের প্রার্থী হিসাবে দ্রৌপদী মুর্মু প্রেসিডেন্টাল ইলেক্শনে অংশগ্রহণ করেছিলেন?

ভারতীয় জনতা পার্টি (NDA) দলের প্রার্থী হিসাবে দ্রৌপদী মুর্মু প্রেসিডেন্টাল ইলেক্শনে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

Q. দ্রৌপদী মুর্মু কোন জাতির অন্তর্গত?

দ্রৌপদী মুর্মু আদিবাসী জাতির অন্তর্গত।

Leave a Comment