পূর্ব ভারতে তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রাধান্য লাভের কারণগুলি আলোচনা করো।

পূর্ব ভারতে তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রাধান্য লাভের কারণগুলি আলোচনা করো: কয়লা ও খনিজ তেল পুড়িয়ে যে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয়, তাকে সাধারণ ভাবে তাপবিদ্যুৎ বলে। ভারতের অধিকাংশ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র পূর্ব ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খন্ড, উড়িষ্যা, অসম ইত্যাদি রাজ্যের অন্তর্গত দুর্গাপুর, ফারাক্কা, ব্যান্ডেল, সাঁওতালডিহি, কোলাঘাট, বোকারো, পত্রাতু, তালচের ইত্যাদি স্থানে গড়ে উঠেছে। পূর্ব ভারতের এই সমস্ত অঞ্চলে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র গড়ে ওঠার কারণগুলি হল নিম্নরূপ-

১)কয়লার সহজলভ্যতা: তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রধান কাঁচামাল হলো কয়লা।পূর্ব ভারতের অন্তর্গত ঝাড়খণ্ডের ঝরিয়া, বোকারো, গিরিডি; উড়িষ্যার তালচের, রামপুর; পশ্চিমবঙ্গের রানীগঞ্জ, আসানসোল, অন্ডাল ইত্যাদি স্থান থেকে প্রচুর পরিমাণে বিটুমিনাস জাতীয় কয়লা উত্তোলন করা হয়। ফলে এই অঞ্চলে তাপ বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় কাঁচামালের অভাব হয়না।

২)অন্যান্য শক্তি সম্পদের অভাব: পূর্ব ভারতের নদীগুলি অধিকাংশই অনিত্যবহ এবং এগুলি খরস্রোতা নয়। ফলে এখানে জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের সুযোগ কম। এছাড়া এই অঞ্চলে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উপযুক্ত অন্যান্য শক্তি সম্পদেরও অভাব পরিলক্ষিত হয়। তাই স্থানীয় কয়লার সাহায্যে তাপবিদ্যুৎ উৎপাদন করেই এই অঞ্চলে বিদ্যুতের যোগান দেওয়া হয়।

৩)উন্নত পরিবহন ব্যবস্থা: কয়লা খনি থেকে কয়লা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পাঠানোর জন্য উন্নত পরিবহন ব্যবস্থার প্রয়োজন হয়। পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলির সড়ক ও রেলপথ পরিবহন ব্যবস্থা উন্নত হওয়ায় সহজেই কয়লা খনি থেকে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কয়লা প্রেরণের সুবিধা হয়েছে, যা এই অঞ্চলে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র গড়ে উঠতে সাহায্য করেছে।

৪)সুলভ শ্রমিক: তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজে প্রচুর সুলভ ও দক্ষ শ্রমিকের প্রয়োজন হয়। পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলি ঘনবসতিপূর্ণ হওয়ায় এই অঞ্চলে তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রয়োজনীয় সুলভ ও দক্ষ শ্রমিকের অভাব হয়না।

৫)মূলধনের যোগান: পূর্ব ভারতে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র গড়ে তোলার প্রয়োজনীয় মূলধন স্বাধীনতার পূর্বে ব্রিটিশ সরকার বিনিয়োগ করেছিল।বর্তমানে এই অঞ্চলের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রয়োজনীয় মূলধন বিভিন্ন ধনী শিল্পপতি এবং কেন্দ্রীয় সরকার ও সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকার বিনিয়োগ করে থাকেন।

৬)বিদ্যুতের ব্যাপক চাহিদা: পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলি অত্যন্ত জনবহুল হওয়ায় এবং এই রাজ্যগুলিতে দ্রুত নগরায়ন ও শিল্পায়ন হওয়ায় বিদ্যুতের চাহিদা প্রচুর। স্থানীয় অঞ্চলে বিদ্যুতের এই বিপুল চাহিদা এই অঞ্চলে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র গড়ে তোলাকে উৎসাহিত করেছে।

Leave a Comment