ব্রহ্মপুত্র নদের গতিপথ | ব্রহ্মপুত্র নদের উৎপত্তি কোথায়?

ব্রহ্মপুত্র নদের গতিপথ | ব্রহ্মপুত্র নদের উৎপত্তি কোথায়?

ব্রহ্মপুত্র নদের উৎপত্তি

ব্রহ্মপুত্র নদ তিব্বতের মানস সরোবরের প্রায় 90 কিমি দক্ষিণ-পূর্বে চেমায়ুং দুং হিমবাহ থেকে উৎপত্তি লাভ করেছে।

ব্রহ্মপুত্র নদের দৈর্ঘ্য

ব্রহ্মপুত্র নদের মোট দৈর্ঘ্য প্রায় 2900 কিমি। তবে ভারতে এই নদের দৈর্ঘ্য মাত্র 885 কিমি।

ব্রহ্মপুত্র নদের প্রবাহপথ

তিব্বতের মানস সরোবরের কাছে চেমায়ুং দুং হিমবাহ থেকে উৎপত্তি লাভ করে ব্রহ্মপুত্র নদ সাংপো নাম নিয়ে তিব্বতের মধ্য দিয়ে পূর্ব দিকে প্রায় 1080 কিমি পথ প্রবাহিত হয়েছে।এই সাংপো নদী ভারতের অরুণাচল প্রদেশের অন্তর্গত নামচাবারোয়া শৃঙ্গের কাছে গভীর গিরিখাত সৃষ্টি করেছে এবং দক্ষিনে বাঁক নিয়ে প্রথমে সিয়ং ও পরে ডিহং নামে ভারতে প্রবেশ করেছে। এরপর আসামের সাদিয়ার কাছে ডিহং এর সঙ্গে ডিবং ও লোহিত নদী এসে মিলিত হয়েছে। এই ডিহং, ডিবং ও লোহিতের মিলিত প্রবাহ ব্রহ্মপুত্র নাম নিয়ে পশ্চিম দিকে সাদিয়া থেকে ধুরড়ি পর্যন্ত প্রায় 720 কিমি পথ অতিক্রম করেছে। এরপর এই নদ দক্ষিণমুখী হয়ে বাংলাদেশি প্রবেশ করার পর যমুনা নামে প্রবাহিত হয়েছে এবং পদ্মার সাথে মিলিত হয়ে মেঘনা নাম নিয়ে বঙ্গোপসাগরে পড়েছে।

ব্রহ্মপুত্র নদের উপনদী

ব্রহ্মপুত্র নদের ডান ও বাম দিক থেকে বেশকিছু উপনদী এসে মিলিত হয়েছে। এদের মধ্যে ব্রহ্মপুত্র নদের উল্লেখযোগ্য উপনদী হলো- সুবনসিরি, ধানসিরি, মানস, সংকোশ, তিস্তা, তোর্সা, কামেং, গুরুধিয়াং, দিসাং কপিলী ইত্যাদি।

ব্রহ্মপুত্র নদের বিশেষ বৈশিষ্ট্য

আসামের ব্রহ্মপুত্র নদীর মাজুলী দ্বীপ হল পৃথিবীর বৃহত্তম নদী দ্বীপ।

ব্রহ্মপুত্র নদের তীরবর্তী শহর

ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে দিসপুর/গুয়াহাটি, ডিব্রুগড়, তেজপুর ইত্যাদি শহর অবস্থিত।

Leave a Comment